protichinta

বিশ শতকের প্রথমার্ধে দক্ষিণ এশিয়ায় চলচ্চিত্রের দেশীয়করণ: আন্তর্দেশীয় থেকে স্বদেশীয় জনপরিসর

জাকির হোসেন রাজু, অনুবাদ: প্রণব ভৌমিক

সারসংক্ষেপ

চলচ্চিত্র সংস্কৃতির একটি শক্তিশালী মাধ্যম। পশ্চিমা আবিষ্কার হলেও, খুব দ্রুতই চলচ্চিত্র দক্ষিণ এশীয় জনপরিসরে জায়গা করে নেয়। বিনোদনের মাধ্যম ছাড়াও জাতীয় পরিচয় ও মনস্তত্ত্ব তৈরি এবং দেশীয় জনপরিসরে পরিবর্তন ঘটাতে সক্ষম হয়েছিল চলচ্চিত্র। ভিনদেশি সংস্কৃতির একটি মাধ্যম কীভাবে দেশীয় অন্যান্য বিনোদন মাধ্যমের সংস্পর্শে এসে পরিবর্তিত হয়েছিল এবং গণমানুষের রুচি এবং রাজনৈতিক আকাঙ্ক্ষায় পরিবর্তন সাধন করেছিল তা অনুধাবন জরুরি। বিশ শতকের প্রথমার্ধে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তর সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক পরিসরে, উত্পাদন থেকে গ্রহণ পর্যায়ে, চলচ্চিত্র কীভাবে এ দেশের হয়ে উঠেছে, তা এই প্রবন্ধে আলোচিত হয়েছে। সাংস্কৃতিক রূপান্তরের প্রক্রিয়াকে এখানে ‘বিভিন্ন সামাজিক গোষ্ঠীর মধ্যে যুগপত্ বিনিময় এবং বিরোধ’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। ফলে বিশ শতকের প্রথম ছয় দশকে পূর্ব বাংলায় চলচ্চিত্র মাধ্যমের সাংস্কৃতিক গ্রহণ প্রক্রিয়াকে বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর জন্য বিবিধ কিন্তু পরস্পর সংযুক্ত জনপরিসরের ভিত্তিতে দেখা যেতে পারে; যেখানে সব সময়ই জাতিসত্তা ও রূপান্তরের মধ্য দিয়ে গিয়েছে।

মুখ্য শব্দগুচ্ছ:

চলচ্চিত্র, জনপরিসর, দেশীয়করণ, দক্ষিণ এশিয়া, সংস্কৃতি, জাতিসত্তা।

pathok

যোগাযোগের ঠিকানা

সিএ ভবন,
১০০ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,
কারওয়ান বাজার, ঢাকা - ১২১৫।

ফোন: ৮৮০-২-৮১১০০৮১, ৮১১৫৩০৭
ফ্যাক্স - ৮৮০-২-৯১৩০৪৯৬

protichinta kinte chile